Home / মিডিয়া নিউজ / অবশেষে এক হলেন শাওন-শিলা, গ্রামীণফোনের কাছে ৩ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ দাবি

অবশেষে এক হলেন শাওন-শিলা, গ্রামীণফোনের কাছে ৩ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ দাবি

বাংলাদেশের জনপ্রিয় লেখক ও পরিচালক হুমায়ূন আহমেদের কন্যা শীলা আহমেদের সঙ্গে অভিনেত্রী

মেহের আফরোজ শাওনের একটা সময় অনেক ভালো সম্পর্ক ছিল। তবে মেহের আফরোজ শাওনকে

হুমায়ূন আহমেদ বিয়ে করার পর তাদের মধ্যে সম্পর্কের অবনতি ঘটে। এমনকি দীর্ঘদিন ধরে তারা

একে অপরের সঙ্গে কথা বলে না। তাদের দুজনকে আর এক সঙ্গে দেখা যায়নি। অবশেষে হুমায়ূন আহমেদের কন্যা শিলা আহমেদ ও অভিনেত্রী মেহের আফরোজ শাওন এক হলেন। তারা দুজন এক হয়ে গ্রামীণফোনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করেছেন। এ বিষয়ে এবার বিস্তারিত সংবাদ প্রকাশ পেল।

অনুমতি ছাড়াই হুমায়ূন আহমেদের সৃষ্টির বাণিজ্যিক ব্যবহারের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করতে এক হলেন শাওন ও শিলা। তারা মেধাস্বত্ব আইন ল’ঙ্ঘনের অভিযোগ এনে গ্রামীণফোনের কাছে ৩ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণও দাবি করেছেন।

অনুমতি ছাড়াই কিংবদন্তি লেখক হুমায়ূন আহমেদের জনপ্রিয় চারটি চরিত্রকে বাণিজ্যিকভাবে ব্যবহার করে মেধাস্বত্ব আইন ল’ঙ্ঘন করার অভিযোগে গ্রামীণফোনকে আইনি নোটিশ পাঠানো হয়েছে। সেখানেই ৩ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ দাবি করেছে লেখক পরিবার।

প্রয়াত এই লেখকের স্ত্রী মেহের আফরোজ শাওনসহ পরিবারের সদস্যদের পক্ষ থেকে সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ব্যারিস্টার হামিদুল মিজবাহ এ নোটিশ পাঠিয়েছেন। নোটিশের বিষয়টি নিশ্চিত করেন আইনজীবী হামিদুল মিজবাহ।

প্রয়াত হুমায়ূন আহমেদের স্ত্রী মেহের আফরোজ শাওন, কন্যা নোভা আহমেদ, শীলা আহমেদ, বিপাশা আহমেদ, পুত্র নূহাশ হুমায়ূন ও ভাই জাফর ইকবালের পক্ষে এ নোটিশ পাঠানো হয়েছে।

তাদের আইনজীবী বলেন, ’আজ ২৭ জুলাই, মঙ্গলবার রেজিস্ট্রি ডাকযোগে গ্রামীণফোনকে নোটিশ পাঠিয়েছি। এর আগে গত রোববার রাতেও ই-মেইল করেছিলাম।’

মেধাস্বত্ব আইন ল’ঙ্ঘ’ন করে গ্রামীণফোন যে চারটি চরিত্র অবলম্বনে যেসব প্রমোশনাল ভিডিও প্রচার করছে, তা তিনদিনের মধ্যে অপসারণ করতে বলা হয়েছে নোটিশে। সেই সঙ্গে মেধাস্বত্ব আইন লঙ্ঘনের জন্য ৩ কোটি ১৫ লাখ ৯৮ হাজার টাকা ক্ষতিপূরণ ১৫ দিনের মধ্যে হুমায়ূন আহমেদের পরিবারের সদস্যদের প্রদান করতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

অন্যথায় গ্রামীণফোনের বিরুদ্ধে মামলা করা হবে বলেও জানিয়েছেন নোটিশকারী আইনজীবী মিজবাহ।

জানা গেছে, মোবাইল ফোন কোম্পানি গ্রামীণফোন ২০২০-এর জুলাই মাসে ’কেমন আছেন তারা’ শীর্ষক কয়েক পর্বের একটি ধারাবাহিক প্রোমোশনাল অনুষ্ঠান প্রচার করে। অনুষ্ঠানটির টাইটেল ছিল ’গ্রামীণফোন নিবেদিত কেমন আছেন তারা’।

অনুষ্ঠানটি গ্রামীণফোনের ফেসবুক পেজ ও ইউটিউব চ্যানেল থেকে প্রচার করা হয় এবং তা ধারাবাহিকভাবে চলতে থাকে। এই অনুষ্ঠানে প্রয়াত লেখক হুমায়ূন আহমেদের রচিত চারটি জনপ্রিয় চরিত্র বাকের ভাই (কোথাও কেউ নেই), এলাচি বেগম (অয়োময়), সোবহান সাহেব (বহুব্রীহি) এবং তৈয়ব আলীকে (উড়ে যায় বক পক্ষী) ব্যবহার করা হয়।

এ জন্য গ্রামীণফোন হুমায়ূন আহমেদের পরিবারের সদস্য বা উত্তরাধিকারীদের কাছ থেকে কোনো প্রকার অনুমতি বা লাইসেন্স নেয়নি। ফলে মেধাস্বত্ব আইন ল’ঙ্ঘিত হয়েছে।

তাই গ্রামীণফোনকে নোটিশ পাঠিয়ে ক্ষতিপূরণ দাবির পাশাপাশি প্রমোশনাল ভিডিওগুলো সরানোর জন্য বলা হয়েছে৷

উল্লেখ্য, হুমায়ূন আহমেদ একটা সময় অসংখ্য জনপ্রিয় নাটক করেছেন। তার সেই সকল জনপ্রিয় নাটক গুলো এখনো দর্শকদের কাছে ব্যাপক জনপ্রিয় হয়ে রয়েছে। এখনো প্রায় সময় সেই সকল নাটক দর্শকরা দেখে থাকেন। তবে এবার মেহের আফরোজ শাওন অভিযোগ তুলেছেন গ্রামীণফোন অনুমতি না নিয়ে হুমায়ূন আহমেদের নাটক প্রচার করেছে। এর কারণে তিনি গ্রামীণফোনকে নোটিশ পাঠিয়েছেন। এছাড়া ৩ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ দাবি করা হয়েছে।

About Nusraat

Check Also

‘আমি কোনো ফকিরনি পরিবারের মেয়ে না’, নীলা চৌধুরীকে শাবনূর

চিত্রনায়ক সালমান শাহর মৃত্যুর ২৪ বছর পর পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই) তদন্ত প্রতিবেদন প্রকাশের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *