Home / মিডিয়া নিউজ / যে কারনে হানিফ সংকেত মারা যাওয়ার পরও মানুষ কাদবে এবং দোয়া করবে

যে কারনে হানিফ সংকেত মারা যাওয়ার পরও মানুষ কাদবে এবং দোয়া করবে

জনপ্রিয় অনুষ্ঠান ইত্যাদির উপাস্থাপক ও নির্দেশক হানিফ সংকেত তার ব্যাতক্রমি উপাস্থাপনা ও

পরিবেশনার জন্য সকলের কাছে বিখ্যাত। ইত্যাদি অনুষ্ঠানের মাধ্যম তিনি সমাজের বিভিন্ন অসংগতি হাসি তামাশার মাধ্যমে উপাস্থাপন করেন।

অভিনেত্রী নাসরিনের জানা-অজানা তথ্য!

বাংলা চলচ্চিত্রে বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন অভিনেত্রী নাসরিন। চলচ্চিত্র জগতে রয়েছে তারা দারুন খ্যাতি।রূপালী পর্দায় প্রায় সাত শতাধিক ছবিতে অভিনয় করেছেন অভিনেত্রী নাসরিন।

বর্তমানে চলচ্চিত্রে নিয়মিত নন তিনি। সর্বশেষ হাসিবুর রেজা কল্লোল অভিনীত ‘সত্তা’ ছবির শুটিংয়ে অংশ নিয়েছিলেন। তারপর মাতৃত্বকালীন অবসরে যান তিনি। গেল ৮ আগস্ট দ্বিতীয়বারের মত সন্তানের জননী হয়েছেন তিনি। ছেলের নাম রেখেছেন রিজন। এখন বড় মেয়ে, ছেলে আর স্বামী নিয়েই কাটছে তার সুখের দিনযাপন। তবে সোমবার (১৭ অক্টোবর) নাসরিন জানালেন, তিনি আবারো চলচ্চিত্রে নিয়মিত অভিনয় করতে চান।

তিনি বলেন, ‘আমি আবারো নিয়মিত চলচ্চিত্রে অভিনয় করতে চাই। তবে আগে অনেক আইটেম গানে নাচতাম, কিন্তু এখন থেকে আর আইটেম গানে নাচবো না। আমি চাই মানসম্মত ছবিতে দর্শকদের ভালো লাগার মতো কিছু চরিত্রে কাজ করতে।’

অভিনেত্রী ছাড়াও নাসরিন আইটেম কন্যা হিসেবে বেশ পরিচিত ছিলেন। তবে এই তকমা আর নিজের নামের আগে রাখতে চান না তিনি। নাসরিন বলেন, ‘২০১৩ সালে সর্বশেষ মালেক আফসারি পরিচালিত ‘ফুল অ্যান্ড ফাইনাল’ ছবির আইটেম গানে নাচি। সে সময় আমার জমজ সন্তান পেটে ছিল। নাচে পারফর্ম করার সময় আঘাত লেগে আমার একটা সন্তান নষ্ট হয়ে যায়। তারপর থেকে সিদ্ধান্ত নেই আর আইটেম গানে নাচবো না। এখনও আমি আমার সিদ্ধান্তে অবিচল এবং ভবিষ্যতেও থাকবো।’

এদিকে, নাসরিন ‘সত্তা’ ছবির একটি গুরুত্বপূর্ণ ছবিতে অভিনয় করেছেন। সে ছবির নির্মাণ কাজ বর্তমানে শেষ পর্যায়ে। পাশাপাশি নতুন করে ‘খাস জমিন’ নামের একটি ছবির কাজ করবেন বলে প্রাথমিকভাবে কথাবার্তা শেষ করেছেন।
নাসরিন বলেন, ‘এখন থেকে যেসব ছবিতে অভিনয় করবো সব ছবির গল্প-চরিত্র বুঝেশুনে করবো। যদি ভালো চরিত্র পাই তাহলে পারিশ্রমিক কম হলেও কাজ করবো। আসলে আমি দীর্ঘদিন চলচ্চিত্রের সঙ্গে জড়িত। এখানে অভিনয় করে আমি বেঁচে আছি, আজকের এই অবস্থানে এসে পৌঁছেছি। তাই অভিনয় থেকে দূরে থাকা আমার জন্য কষ্টকর। তাই আমি এখানে নিয়মিত থাকতে চাই। এখন অনেক তরুণ ও মেধাবী নির্মাতারা কাজ করছেন। তাদের হাতেই চলচ্চিত্রের আগামীর নেতৃত্ব। এরা চলচ্চিত্রে অনেক পরিবর্তন এনেছেন। গল্প ও চরিত্রেও নতুনত্ব আনছেন।’

নাসরিনের রুপালি পর্দায় অভিষেক হয় ১৯৯২ সালে, ‘অগ্নিশথপ’ ছবির মাধ্যমে। তারপর নাসরিনের পরিচিতি আসে প্রয়াত দিলদারের সঙ্গে জুটি বেঁধে। দিলদার মারা যাবার পর কাবিলার সঙ্গেও জুটি বেঁধে কৌতুক চরিত্রে নতুন করে আলোচনায় ছিলেন তিনি। তিনি নেতিবাচক কিছু চরিত্রে কাজ করেও দর্শক মুগ্ধ করেছেন।

ব্যক্তিগত জীবনে অভিনেত্রী নাসরিন ভালোবেসে ২০১২ সালে বিয়ে করেন অভিনেতা-ব্যবসায়ী মুস্তাফিজুর রহমান রিয়েলকে। ২০১৪ সালের প্রথম দিকে কন্যা সন্তান আফরিনের মা হন নাসরিন। বর্তমানে স্বামী ও দুই সন্তানকে নিয়ে নাসরিনের সুখের সংসার।

About Nusraat

Check Also

‘আমি কোনো ফকিরনি পরিবারের মেয়ে না’, নীলা চৌধুরীকে শাবনূর

চিত্রনায়ক সালমান শাহর মৃত্যুর ২৪ বছর পর পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই) তদন্ত প্রতিবেদন প্রকাশের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *