Home / মিডিয়া নিউজ / ‘স্ত্রী হিসেবে কোনো বাড়তি সুবিধা পাইনি, বকা দু-চারটি বেশি খেয়েছি’

‘স্ত্রী হিসেবে কোনো বাড়তি সুবিধা পাইনি, বকা দু-চারটি বেশি খেয়েছি’

মোস্তফা সরওয়ার ফারুকী পরিচালিত ছবি ডুব। আগামীকাল ২৭ অক্টোবর ঢাকাসহ দেশের মোট ৩৯টি

প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পাচ্ছে বলে ছবিটির ঢাকাই প্রযোজনা সংস্থা জাজ মাল্টিমিডিয়া সূত্রে জানা গেছে।

মুক্তির আগের দিন আজ বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ছয়টায় কলকাতার কোয়েস্ট মল আইনক্সে ছবিটির প্রিমিয়ার অনুষ্ঠিত হবে।

ডুব ছবিতে অভিনয় করেছেন বলিউডের অভিনেতা ইরফান খান ও কলকাতার পার্ণমিত্র, বাংলাদেশের নুসরাত ইমরোজ তিশা ও রোকেয়া প্রাচী। ছবিটি প্রযোজনা করেছে বাংলাদেশের জাজ মাল্টিমিডিয়া আর ভারতের এসকে মুভিজ। ছবিটির সহপ্রযোজক হিসেবে রয়েছেন ইরফান খান। মুক্তির আগে এই চলচ্চিত্র প্রসঙ্গে খোলামেলা আলোচনা করেন ’ডুব’ ছবির অভিনেত্রী নুসরাত ইমরোজ তিশা।

ইরফান খানের সঙ্গে কাজ প্রসঙ্গে তিশা বলেন, শুরুতে যখন শুনলাম যে এই ছবিতে ইরফান খান কাজ করবেন, তখন একটু নার্ভাস ও এক্সাইটেড লাগছিল। বুঝতে পারছিলাম না যে কী হবে। তিনি কীভাবে কমফোর্টেবল হবেন, কতটা অ্যাডজাস্ট করতে পারব। কিন্তু তিনি বাংলাদেশে আসার পর যখন শুটিং শুরু করলাম, তখন দেখি ভিন্ন চিত্র। তিনি আমাদের কোনোভাবেই অনুভব করতে দেননি যে তিনি একজন বড় সেলিব্রিটি, একজন বড় অভিনেতা। এত বড় সেলিব্রিটি হয়েও যে এত সিম্পল থাকা যায়, সবার সঙ্গে সুন্দরভাবে কাজ করা যায়, এটা শেখার মতো একটা ব্যাপার। আরও শিখলাম, একটা মানুষ যত বড় হয়, তত সিম্পল হয়।

পরিচালক স্বামীর ছবিতে অভিনয় করার অভিজ্ঞতা প্রসঙ্গে তিশা বলেন, সরয়ারের সঙ্গে বহু কাজ করেছি। সেটে আমরা খুবই পেশাদার। আমি শিল্পী, তিনি পরিচালক। সেটে শিল্পীদের সঙ্গে তিনি পোলাইট ও কমফোর্টেবল। সুন্দর করে সবাইকে সিঙ্ক করিয়ে নেন। এতে সহজেই ক্যারেক্টারে ঢুকে যাওয়া সম্ভব হয়। তাঁর প্রথম কাজই হচ্ছে, শিল্পীদের সেট, গল্প ও নিজের সঙ্গে কথা ও কাজের মাধ্যমে মিশিয়ে নেওয়া। এটুকু নিশ্চিত করছি, স্ত্রী হিসেবে কোনো বাড়তি সুবিধা তো পাইইনি, বরং বকা দু-চারটি বেশি খেয়েছি।

About Nusraat

Check Also

‘আমি কোনো ফকিরনি পরিবারের মেয়ে না’, নীলা চৌধুরীকে শাবনূর

চিত্রনায়ক সালমান শাহর মৃত্যুর ২৪ বছর পর পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই) তদন্ত প্রতিবেদন প্রকাশের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *