Home / মিডিয়া নিউজ / এবার শাওন-চঞ্চল চৌধুরীর গানে কপি রাইট দিয়ে এবার বড় বিপদে সরলপুর ব্যান্ড

এবার শাওন-চঞ্চল চৌধুরীর গানে কপি রাইট দিয়ে এবার বড় বিপদে সরলপুর ব্যান্ড

কিছুদিন আগে যুবতী রাধে নামক বাংলাদেশের একটি লোকসংগীত এর কভার গিয়েছিলেন জনপ্রিয়

অভিনেতা চঞ্চল চৌধুরী এবং অভিনেত্রী মেহের আফরোজ শাওন এই গানটি তারা কভার করার পর

ইউটিউবে যখন ছেড়ে দেয় তখন থেকেই সেটি ভাইরাল হয়ে যায় এবং দুজনের অসামান্য অবদানের

কারণে এই গানটি ব্যাপক ভাবে দর্শকদের হৃদয়ে জায়গা করে নেয় কিন্তু বিপত্তি বাধে সেখানেই যখন

এই গানের কপিরাইট দাবি করে সরলপুর ব্যান্ড। এবং তারা এই গানটি সরিয়ে নিতে নির্দেশ দেয়

সরলপুর ব্যান্ডের নামে ’যুবতী রাধে’ (সর্বত মঙ্গল রাধে) গানটির কপিরাইট রেজিস্ট্রেশন সার্টিফিকেট বাতিলের দাবি জানিয়ে আইনি (লিগ্যাল) নোটিশ পাঠানো হয়েছে।

সংস্কৃতিবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব, রেজিস্ট্রার অব কপিরাইটস, সরলপুর ব্যান্ডের প্রতিষ্ঠাতা ভোকালিষ্ট তারিকুল ইসলাম তপনসহ ছয়জনের কাছে সোমবার জনস্বার্থে রেজিস্ট্রি ডাকযোগে নোটিশটি পাঠিয়েছেন সুপ্রিমকোর্টের আইনজীবী মিয়াজী আলমগীর আলম চৌধুরী।

আগামী ১৫ দিনের মধ্যে ব্যবস্থা না নেওয়া হলে উচ্চ আদালতে রিট মামলাসহ প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

লিগ্যাল নোটিশে উল্লেখ করা হয়, কবি দ্বিজ কানাইয়ের মহুয়া পালা, আশুতোষ ভট্টাচার্যের লেখা বাংলার লোক সাহিত্য (দ্বিতীয় খন্ড) ও

বিমল কুমার মুখপধ্যায়ের বাংলার গ্রাম ছাড়া গ্রন্থটিতে প্রকাশিত লেখার সঙ্গে সরলপুর ব্যান্ডের ’যুবতী রাধে’ গানটির শব্দচয়নের প্রায় হুবহু মিল রয়েছে। লোকগানগুলো কপি রাইট আইনে পাবলিক ডোমেইন মিউজিকের অংশ হয়ে থাকে বলে নোটিসে উল্লেখ করা হয়েছে।

অ্যাডভোকেট মিয়াজী আলমগীর আলম চৌধুরী বলেন, এটা তাদের মৌলিক কোন গান নয়, এটা চিরায়ত লোকগান। অনাদিকাল হতে এটা বাংলার একটা সংস্কৃতির অংশ হয়ে গেছে।

তিনি বলেন, সরলপুর ব্যান্ড এই গানটি ২০১৮ সালের ৪ জুন কপিরাইট করে ইউটিউবে আপলোড করেছে। কিন্তু কপিরাইট আইন অনুযায়ী মিউজিক ওয়ার্ক (সঙ্গীত কাজ) মৌলিক বা প্রথম উদ্ভাবিত হতে হবে।

যুবতী রাধে গান গেয়ে ভাইরাল হয়েছিল শাওন এবং অভিনেতা চঞ্চল চৌধুরী মূলত এই গানটি ভিন্ন আঙ্গিকে গাওয়া হয়েছিল এবং এই গানে সবথেকে বেশি আকর্ষণীয় লেগেছিল তাদের

গাওয়ার যে ভঙ্গিমায় সেটা।যুবতী রাধে গানে কণ্ঠ দিয়ে জানান ব্যাপক আলোচনায় এসেছেন এবং এই গানটি পরবর্তীতে সরলপুর ব্যান্ড তাদের নিজেদের লেখা গান হিসেবে দাবি করে তবে এ ব্যাপারে পরবর্তী জানান জটিলতা দেখা দেয় এবং অভিনেতা চঞ্চল চৌধুরী বলেন যে তারা প্রচলিত গানকে নিজেদের গান হিসেবে দাবি করেছেন

About Nusraat

Check Also

‘আমি কোনো ফকিরনি পরিবারের মেয়ে না’, নীলা চৌধুরীকে শাবনূর

চিত্রনায়ক সালমান শাহর মৃত্যুর ২৪ বছর পর পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই) তদন্ত প্রতিবেদন প্রকাশের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *