Home / মিডিয়া নিউজ / জয়া আহসানের সব প্রশ্নের উত্তর পেলেন ভক্ত জায়েদুর

জয়া আহসানের সব প্রশ্নের উত্তর পেলেন ভক্ত জায়েদুর

বলা হয়েছিল, ২৮ অক্টোবরের বিকেল পাঁচটার পরের কোনো একসময়ে চট্টগ্রামের হোটেল অ্যাভিনিউতে

জয়া আহসান সময় দেবেন আনন্দ কুইজ-৫–এর বিজয়ী মো. জায়েদুর রহমানকে। কিন্তু বেলা তিনটার

মধ্যেই হোটেলের লবিতে হাজির এই ভক্ত। বলেন, প্রিয় অভিনেত্রীর সব জেনে নেব আজ। কী কী

প্রশ্ন করবেন, বলতেই বের করলেন ছোট্ট একটি কাগজ। দেখা গেল ধাপে ধাপে লেখা কিছু প্রশ্ন! জায়েদুর বলেন, ’যদি ভুলে যাই। তাই লিখে এনেছি।’ জয়া আহসান সেদিন তাঁর প্রথম প্রযোজিত চলচ্চিত্র দেবীর প্রচারণায় চট্টগ্রামে ছিলেন। এই সুযোগই কাজে লাগানো এবার।

অবশেষে বিকেল সোয়া পাঁচটা বাজতেই জায়েদুরের ডাক পড়ল—হোটেলের লিফটের চারে। প্রিয় অভিনেত্রীর সঙ্গে সরাসরি দেখা হবে, আবেগে ভাসতে থাকা জায়েদুরকে যেন কিছুটা ভয়ও পেয়ে বসেছে। লিফটের দরজা খুলতেই ভক্তের দিকে হাত বাড়ালেন জয়া আহসান। জায়েদুরকে তখন আর পায় কে! তিনি যেন তখন সপ্তম আকাশে।

ভক্ত নয়, যেন কোনো এক সাংবাদিকের সামনে পড়লেন জয়া আহসান। ভক্তকে নিজের এমন কিছু জানালেন, যা হয়তো আগে কখনো বলা হয়নি। কুশল বিনিময় শেষে জায়েদুর জয়া আহসানকে প্রশ্ন করলেন, ’আপনার প্রিয় অভিনেতা-অভিনেত্রী কে?’

একদম সময় না নিয়ে জয়া আহসানের জবাব, ’দেশে আমার প্রিয় শিলা আহমেদ, শামীমা নাজনীন, সুবর্ণা মুস্তাফা। আর বিদেশি যদি বলি, জন মেরো।’ জায়েদুর তখন বলে ওঠেন, ’আপনি কয়েক দিন আগে একটি সাক্ষাৎকারে প্রিয় অভিনেত্রী হিসেবে শিলা আহমেদের কথা বলেছিলেন।’ জয়া হাসতে হাসতে বলেন, ’তুমি তো দেখি আমার সব খবর রাখো।’ হাসি সংক্রমিত হতে দেরি হলো না জায়েদুরের মুখেও।

’আপনি অভিনয়ে কীভাবে এলেন গল্পটা কি বলা যাবে?’ এমন প্রশ্নে জয়া আহসান খুলে বললেন সব। বললেন, ’অনেক বছর আগে আমি একটি নাটকে অভিনয় করেছিলাম। আমার অভিনয় শ্রদ্ধেয় গোলাম মুস্তাফা স্যারের খুব পছন্দও হয়। সেই নাটকটি যখন প্রচারিত হয়, দেখি সবাই সুনাম করছেন। তবে তখন বাড়িতে একটু অসুবিধা ছিল। কিন্তু পরে সবাই উৎসাহ দিতে থাকেন।’

’আপনার অভিনয় করা প্রিয় ছবি কী কী?’ একটু সময় নিলেন জয়া আহসান। তারপর বলে ওঠেন, ’ডুবসাঁতার, বিসর্জন। আর এখন যদি বলি, অবশ্যই দেবী।’ ভক্তের প্রশ্নের উত্তর দিতে দিতেই জয়ার পাল্টা প্রশ্ন—’আচ্ছা তুমি কি দেবী দেখেছ?’ জায়েদুর বলে ওঠেন, ’গত শুক্রবারেই দেখেছি।’ আবার প্রশ্ন—’কেমন লাগল?’ জায়েদুর উত্তর দিলেন, ’অসাধারণ।’

জায়েদুরের প্রশ্নের থলে থেকে বের হতে থাকে আরও প্রশ্ন। ’আপনার প্রিয় মানুষ কে?’ জয়া বলেন, ’সাধারণত মা-ই তো সবার প্রিয় মানুষ হয়। আমার এর বাইরে আরও একজন প্রিয় মানুষ আছেন। তিনি হলেন আমার নানি। দেবী ছবিটি করার সময় হুমায়ূন স্যারের পর আমি আমার নানিকেই মনে মনে ভেবেছি। এই ছবিটি আমার নানিকেও উৎসর্গ করেছি। যদিও হুমায়ূন স্যারের মতো আমার নানিও এখন আর নেই।’ বলতে বলতে চোখ ভিজে ওঠে জয়া আহসানের।

প্রিয় অভিনেত্রীর কাছে একের পর এক উত্তর পেয়ে জায়েদুর যেন আরও সাহসী। জায়েদুর বলেন, ’আমরা যদি আপনার মতো হতে চাই, তাহলে কী কী করতে হবে।’ জয়া আহসান ভক্ত জায়েদুরকে দিলেন একগাদা পরামর্শ। ’তোমাকে ছোট থেকেই শুরু করতে হবে। ছোট-বড় সব চরিত্রই খুব ভালো চরিত্র। টেলিভিশনে অভিনয় করতে চাইলে তোমাকে আগে থিয়েটারে কাজ করতে হবে। দেখবে, সেখানেই তুমি গড়ে উঠবে। মনে রাখতে হবে, অভিনয়ে শর্টকাটে বড় হওয়ার রাস্তা নেই। শিখতে শিখতে এখানে বড় হওয়া যায়।’

এভাবেই শেষ হয় ভক্তের সঙ্গে অভিনেত্রীর আলাপন। এবার জায়েদুর আবদার করলেন সেলফি তোলার। ছবি হলো। কথাও হলো। প্রিয় অভিনেত্রীর কাছ থেকে বিদায় নিয়ে ফেরার পথে উচ্ছ্বসিত দেখা গেল জায়েদুরকে। বলেন, ’সুযোগ করে দেওয়ার জন্য ধন্যবাদ।’ কেমন লাগল এমন প্রশ্নের উত্তরে জায়েদুর বললেন, ’প্রিয় অভিনেত্রীর সঙ্গে দেখা ও কথা বলার এই সময়টুকুও আমার মনে অনেক দিন লেগে থাকবে।’ আনন্দ কুইজ ৫–এর উত্তর

১. জয়া আহসান প্রযোজিত প্রথম চলচ্চিত্রের নাম কী?

উত্তর: দেবী

২. দেবী চলচ্চিত্রে জয়া আহসান অভিনীত চরিত্রের নাম কী?

উত্তর: রানু

৩. জয়া আহসান অভিনীত প্রথম চলচ্চিত্রের নাম কী?

উত্তর: ব্যাচেলর (২০০৪)

৪. তিনি কোন কোন চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পান

উত্তর: গেরিলা, চোরাবালি ও জিরো ডিগ্রি

বিজয়ী

মো. জায়েদুর রহমান

শিক্ষার্থী, হাজী মুহাম্মদ মহসিন কলেজ

About Nusraat

Check Also

‘আমি কোনো ফকিরনি পরিবারের মেয়ে না’, নীলা চৌধুরীকে শাবনূর

চিত্রনায়ক সালমান শাহর মৃত্যুর ২৪ বছর পর পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই) তদন্ত প্রতিবেদন প্রকাশের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *