Home / মিডিয়া নিউজ / খুব একটা ভালো নেই, ছেলে অনিক কানাডায়,বড় বোন সুচন্দা আছেন আমেরিকায়:ববিতা

খুব একটা ভালো নেই, ছেলে অনিক কানাডায়,বড় বোন সুচন্দা আছেন আমেরিকায়:ববিতা

এক সময়ের জনপ্রিয় অভিনেত্রী ববিতা। করোনা ভাইরাসের কারণে তিনি এখন বাসায় সময় কাটাচ্ছেন।

বর্তমানে তিনি বাসায় থেকে তার ছেলে ও বড় বোনের সাথে প্রতিনিয়ত যোগাযোগ রাখছেন। তার

ছেলে অনিক বর্তমানে কানাডায় রয়েছেন। আর তার বড় বোন সুচন্দা আছেন আমেরিকায়। বর্তমানে

পৃথিবীব্যাপী স্থবির হয়ে পড়া জীবনযাপন নিয়ে গণমাধ্যমের সাথে তিনি কথা বলেছেন।

বাসায় আছেন। সময় কীভাবে কাটছে?

খুব একটা ভালো নেই। সবার মতো আমারও দিন কাটছে বিষণ্ণতায়। পরিবারের সদস্যদের নিয়ে বেশি চিন্তা হচ্ছে। আমার ছেলে অনিক কানাডায় থাকে। বড় বোন সুচন্দা আছেন আমেরিকায়। মেজ ভাইও সেখানেই থাকেন। আরেক ভাই অস্ট্রেলিয়ায়। তাদের সঙ্গে ফেসবুকে ভিডিও কলে কথা হয়। কিন্তু সবকিছুর মধ্যেও চেষ্টা করছি শান্ত থাকতে। বাসায় সত্যজিৎ রায়ের সিনেমা দেখে সময় কাটছে। পাশাপাশি বেশ কিছু ক্ল্যাসিক সিনেমাও দেখছি।

দীর্ঘদিন বাড়িতে থাকার কারণে সবার মধ্যে এক ধরনের বিষণ্ণতা দেখা দিচ্ছে। মানসিক এমন পরিস্থিতি থেকে বের হওয়ার জন্য কোনো ব্যবস্থা নিয়েছেন?

আমার বাসায় ছাদবাগান করেছি। প্রতিদিন সেগুলোর পরিচর্যা করি। ভালো বই পড়ছি। নিয়মিত নামাজ, দোয়া, ব্যায়াম ও বাসার কাজ করছি। চেষ্টা করছি সবসময় কোনো কিছু নিয়ে ব্যস্ত থাকতে। যেন বিষণ্ণতাকে দূরে রাখা যায়।

গৃহবন্দি জীবনে কোনো নতুন উপলব্ধি খুঁজে পেলেন?

অবশ্যই। পৃথিবীব্যাপী আমরা সবাই একা ভালো থাকতে চেয়েছিলাম। কিন্তু অন্যকে ভালো না রেখে কখনও নিজে ভালো থাকা যায় না। এমন সংকটময় পরিস্থিতি বিষয়টি স্পষ্ট করে দিয়েছে। তা ছাড়া মানুষ যেভাবে প্রকৃতিকে নিয়ন্ত্রণ করতে চেয়েছে, সেটি ছিল চরম অন্যায়। প্রকৃতি দ্বারা যে আমরা নিয়ন্ত্রিত- এ বিষয়টি মানুষ আগামীতে ভুলে যাবে না বলেই বিশ্বাস। সেদিন ইউটিউবে দেখলাম একটি হরিণ কক্সবাজারে সৈকতের কিনারায় খেলছে। অথচ এ ধরনের দৃশ্য আমার জীবদ্দশায় কখনও দেখিনি। আমার একটাই অনুরোধ, মানুষের যেমন প্রাকৃতিক সৌন্দর্য উপভোগের অধিকার আছে, প্রাণিকুলেরও তেমনটি রয়েছে। প্রকৃতি ও মানুষের ভারসাম্য যদি ধরে রাখা না যায়, এমন বিপর্যয় বারবার ফিরে আসবে।

তিনি আরও বলেন, করোনা ভাইরাসের কারণে চলচ্চিত্রসহ দেশের সকল সেক্টর খুব খারাপ অবস্থার মধ্যে পড়েছে। একটা অনিশ্চয়তার মধ্যে পড়েছে সকল সেক্টর। এর কারণে যে ক্ষতি হচ্ছে তা কাটাতে কতদিন লাগবে তা কেউ বলতে পারে না। দেশে এখন শ্রমজীবী, দরিদ্র মানুষসহ সকলে চরম অনিশ্চয়তার মধ্যে পড়েছে। এই ক্ষতি সহজে কাটিয়ে ওঠা সম্ভাব নয়। এই সময় দেশের সকল বিত্তবানদের প্রতি তিনি আহ্বান জানান তারা যেন অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ান। তিনি আরও বলেন আমরা অবশ্যই এক সময় এই সংকট কাটিয়ে উঠব।

About Nusraat

Check Also

‘আমি কোনো ফকিরনি পরিবারের মেয়ে না’, নীলা চৌধুরীকে শাবনূর

চিত্রনায়ক সালমান শাহর মৃত্যুর ২৪ বছর পর পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই) তদন্ত প্রতিবেদন প্রকাশের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *