Home / মিডিয়া নিউজ / আমাকে দিয়ে জিম হবে না’

আমাকে দিয়ে জিম হবে না’

চিত্রনায়িকা পূর্ণিমার জন্য গেল বছরটি ছিল বেশ সফলতার। মাঝে কিছুদিন চলচ্চিত্রে কাজ না করলেও

গেল বছরজুড়ে তিনি ছোট পর্দায় খণ্ড নাটক, টেলিছবি, বিজ্ঞাপন, অনুষ্ঠান উপস্থাপনাসহ বেশকিছু

কাজ নিয়ে ব্যস্ত সময় কাটিয়েছেন। তাই পূর্ণিমা মানবজমিনকে বলেন, পুরানো বছরটা অনেক অনেক

ভালো কেটেছে আমার। আর একদিন পরই মাছরাঙা টেলিভিশনের রান্নার অনুষ্ঠান সেরা রাঁধুনির নতুন সিজনের বিচারক হিসেবে দায়িত্ব পালন করব। আর এ কাজের মধ্য দিয়ে নতুন বছরে ক্যামেরার সামনে দাঁড়াতে যাচ্ছি আমি। গাজীপুর, রাঙ্গামাটির বেশকিছু লোকেশনে পুরো মাসজুড়ে এ অনুষ্ঠানের শুটিংয়ে ব্যস্ত থাকতে হবে। টিভি নাটকে কাজ করার বিষয়ে পূর্ণিমা বলেন, এ বছর নাটক না করার প্ল্যান আছে। তবে নাটক না করতে চাইলেও শেষ পর্যন্ত করা হয়ে যায়। তাই একেবারই করবো না তা বলতে চাই না। ঈদের জন্য বিশেষ নাটক হয়তো এক-দুটো করা হতে পারে। তবে আগের বছরের তুলনায় এবার নাটক করার সংখ্যাটা কম হবে।

নতুন কাজের পাশাপাশি ফিটনেস নিয়ে অনেকের অনেক পরিকল্পনা থাকে, পূর্ণিমা তার ফিটনেস নিয়ে কি ভাবছেন? এ প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, ফিটনেস নিয়ে প্রস্তুতি প্রতি বছরই থাকে। চেষ্টা করি মেইনটেইন করার, তবে হয়ে ওঠে না।
সবচেয়ে বড় কথা এই ফিটনেস দিয়েই তো কাজ করছি এখন। তবে আমাকে দিয়ে জিম হবে না। অবশ্য খাবার নিয়ন্ত্রণ করা বা প্রতিদিন হাঁটাহাঁটি হয়তো করা হবে। এখনকার অনেক সেলিব্রেটিকেই ব্যায়াম করে জিরো ফিগারে আসতে দেখা যায়। ঠিক তেমনি পূর্ণিমাও তার ক্যারিয়ারে একবার এমন স্লিম ফিগারে ক্যামেরার সামনে আসতে চেয়েছিলেন। যার ফলে বিড়ম্বনার মুখোমুখি হতে হয়েছিল তাকে। এ প্রসঙ্গে পূর্ণিমা হাসতে হাসতে বলেন, এটা মজার ঘটনা। জিরো ফিগারের মতো একবার স্লিম হয়েছিলাম আমি। আর এর ফলে এমন ঘটলো যে কাজের প্রস্তাব আসাটা বন্ধ হয়ে গেল (হা হা হা)। এমনও ঘটেছে যে অনেকে আমাকে চিনতেই পারছিল না। তখন অনেক স্লিম হয়েছিলাম। যখন একটু স্বাস্থ্য হলো তখন আবার দেখলাম কাজের প্রস্তাব বেশি আসতে শুরু করলো। আর তখন তো শুকিয়ে ঝটপট স্লিম হয়ে যাওয়াটাও কঠিন হয়ে পড়ল। সিনেমায় আসার পর আমি যখন শুকনা ছিলাম তখন কেউ আমাকে নিতে চাইতো না। আর যেই মোটা হয়ে গেলাম তখন অনেকে বললো যে, ‘পূর্ণিমাকে বেশ সুন্দর লাগছে’। ভালো গল্প ও চরিত্রের জন্য অনেকদিন ধরেই অপেক্ষা করছিলেন ঢালিউডের জনপ্রিয় এই মুখ। এজন্য তিনি মাঝে অনেক ছবির প্রস্তাব পেলেও সেসব কাজ না করে লম্বা সময় ভালো কিছুর জন্য অপেক্ষা করেছেন। ‘ভবঘুরে’ নামে একটি ছবির কাজে ফ্রান্সে যাওয়ার কথা ছিল পূর্ণিমার। ছবিটি পরিচালনা করবেন স্বপন আহমেদ। এ বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, এ সিনেমাটি করা হবে কি-না তা এখনই বলতে পারছি না। যেহেতু একবার যাওয়া বাতিল হয়েছে তাই এ ছবিটা হয়তো আমি না-ও করতে পারি। আগামী ২১ থেকে ২৯শে এপ্রিল সুইজারল্যান্ডের জেনেভায় অনুষ্ঠিত হবে আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব ‘ফি-ফগ’ এর ১৩তম আসর। সেখানে প্রদর্শিত হবে পূর্ণিমা অভিনীত ইফতেখার আহমেদ ফাহমি পরিচালিত ‘টু বি কন্টিনিউড’ ছবিটি। উৎসবের লাল গালিচায় হাঁটার জন্য আমন্ত্রণ পেয়েছেন পূর্ণিমা। তাই এপ্রিলের শেষদিকে এ অনুষ্ঠানে অংশ নিতে জেনেভায় যাবেন বলে জানিয়েছেন এ অভিনেত্রী। সবশেষে নতুন বছরের প্রত্যাশা নিয়ে বড় পর্দার জনপ্রিয় এই মুখ বলেন, ২০১৭ সালটা আমার জীবনের জন্য বেস্ট একটা বছর ছিল। এটার রেশ ধরে বলতে হয় যে, ২০১৮ সালটা ২০১৭ সালের চেয়ে ভালো যাক তা চাইব না। ২০১৭ সালের মতো এ বছরটা ভালো গেলেই আমি খুশি।

About Nusraat

Check Also

‘আমি কোনো ফকিরনি পরিবারের মেয়ে না’, নীলা চৌধুরীকে শাবনূর

চিত্রনায়ক সালমান শাহর মৃত্যুর ২৪ বছর পর পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই) তদন্ত প্রতিবেদন প্রকাশের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *