Home / মিডিয়া নিউজ / কাঁদতে কাঁদতে ঐশ্বরিয়া বললেন, ‘আপনারা থামুন’!

কাঁদতে কাঁদতে ঐশ্বরিয়া বললেন, ‘আপনারা থামুন’!

বলিউডের তারা ঝলমলে জগতের বাসিন্দাদের পেছনে মাছির মতো পাপারাজ্জিরা ঘুরবে- এটাই

এখন হয়ে গেছে স্বাভাবিক। কিন্তু কখনও কখনও সাংবাদিকেরাও সীমা লঙ্ঘন করে বসেন, আর

তাতে ধৈর্য ধরে রাখাটা অসম্ভবই হয়ে পড়ে তারকাদের জন্য। ঠিক এমনটাই ঘটেছে বলিউডি অভিনেত্রী ঐশ্বরিয়া রাই বচ্চনের ক্ষেত্রে।

সম্প্রতি ছিলো এই তারকার প্রয়াত বাবা কৃষ্ণরাজ রাই-এর জন্মদিন। দিনটিকে স্মরণীয় করে রাখতে মা বৃন্দা রাই এবং কন্যা আরাধ্যকে নিয়ে মুম্বাইয়ের একটি শিশু হাসপাতাল পরিদর্শনে যান অ্যাশ। ঠোঁট কাঁটা শিশুদের মুখে হাসি ফেরাতে এই হাসপাতালের একশটি অস্ত্রোপচারের খরচ বহন করছেন তিনি।

এমন একটি দিনে হাসপাতালের শিশুদের সঙ্গে যখন ঐশ্বরিয়া কেক কাটতে যাবেন, তখনই কে আগে তার ছবি তুলবে- এ নিয়ে হট্টগোল বেধে গেল ফটোসাংবাদিকদের মধ্যে। কয়েকজন সাংবাদিক তো চিৎকার-চেঁচামেচি করে পরিস্থিতিকে আরও জটিল করে ফেললেন!

শুরু থেকেই পুরো বিষয়টি পছন্দ করছিলেন সাবেক বিশ্ব সুন্দরী। বারবার ইশারা করে তাদের থামতে বলছিলেন তিনি। এক পর্যায়ে উপস্থিত শিশুরা কাঁদতে শুরু করলে চোখে জল আসে তারও।

তিনি বলেন, ’সবাইকে অনুরোধ করছি, আনারা চুপ করুন। আপনাদের এসবের ছবির দরকার নেই। আমি এবং আপনারা- আমরা চলচ্চিত্র জগতের সদস্য, কিন্তু এখানে উপস্থিত বাকিরা নয়। দয়া করে তাদের প্রতি সামান্য শ্রদ্ধা দেখান। এটা কোনো সিনেমার প্রিমিয়ার না, এটা কোনো পাবলিক ইভেন্টও না।’

তারপরও যখন থামছিলো না হইচই, তখন ঐশ্বরিয়া গলার স্বর চড়াতে বাধ্য হন।

বলেন, ’আমি বলছি, আপনারা থামুন।’

কিছুদিন আগেই ঐশ্বরিয়া শিরোনামে এসেছিলেন কন্যা আরাধ্যর ষষ্ঠ জন্মদিন পালনের জাঁকালো উৎসবের আয়োজন করে। ২০১৮ তে মুক্তি পাবে তার নতুন সিনেমা ’ফ্যানি খান’।

About Nusraat

Check Also

‘আমি কোনো ফকিরনি পরিবারের মেয়ে না’, নীলা চৌধুরীকে শাবনূর

চিত্রনায়ক সালমান শাহর মৃত্যুর ২৪ বছর পর পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই) তদন্ত প্রতিবেদন প্রকাশের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *