Home / মিডিয়া নিউজ / আবারও নানা হলেন চিত্রনায়ক ইলিয়াস কাঞ্চন

আবারও নানা হলেন চিত্রনায়ক ইলিয়াস কাঞ্চন

দ্বিতীয়বারের মতো নানা হলেন জনপ্রিয় চিত্রনায়ক ইলিয়াস কাঞ্চন। মঙ্গলবার লন্ডনে বাংলাদেশ সময়

দুপুর সাড়ে ৩টায় পুত্র সন্তানের জন্ম দিয়েছেন ইলিয়াস কাঞ্চনের মেয়ে ইশরাত জাহান ইমা।

বর্তমানে মা ও ছেলে দুজনেই ভালো আছেন বলে নিশ্চিত করেছেন ইলিয়াস কাঞ্চন।

গত ২২ অক্টোবর ছিল ইলিয়াস কাঞ্চনের স্ত্রী জাহানারা কাঞ্চনের ২৫তম মৃত্যুবার্ষিকী। স্ত্রী হারানোর স্মৃতি বিষাদের মেঘ নিয়ে জমেছিল মনে। ঠিক তার একদিন পরেই সাতসাগর তেরো নদীর ওপার থেকে এলো আনন্দের এই খবর। পরিবারে নতুন সদস্য আসায় উচ্ছ্বসিত ’বেদের মেয়ে জোছনা’খ্যাত এই নায়ক।

তিনি বলেন, ’জাহানারাকে হারানোর পর আমার জীবনের গতিপথটাই বদলে গেছে। তার মৃত্যুদিন আমার কাছে খুব কষ্টের, খুব বেদনার। সড়ক দুর্ঘটনার শিকার হয়ে সে ২২ অক্টোবর মারা যায় ২৫ বছর আগে। এই দিনটিকে রাষ্ট্র দীর্ঘদিনের দাবিতে নিরাপদ সড়ক দিবস হিসেবে ঘোষণা দিয়ে আমার শোকের ভাগ নিয়েছে। নিরাপদ সড়কের দাবিতে যে আন্দোলন আমি দেশের মানুষকে নিয়ে করেছি তার ফল পেয়েছি। এটা আমার জন্য আনন্দের। আর এমন বিশেষ দিনের পরদিন ২৩ অক্টোবর এলো নতুন আনন্দের মঞ্চ হয়ে। এই দিনে আমি নানা হলাম। খোদার কাছে অশেষ কৃতজ্ঞতা।’

মেয়ের ঘরের নাতির জন্য সবার কাছে দোয়া চেয়েছেন এই চিত্রনায়ক। তিনি জানালেন, তার নাতির নাম রাখা হয়েছে আরশান। ইলিয়াস কাঞ্চনের একমাত্র কন্যা ইমা এর আগে ২০১২ সালে এক কন্যাসন্তান জন্ম দেন। তার নাম আর্শিয়া মাহনাজ ইসলাম। স্বামী কলিন্স ইসলামকে নিয়ে যুক্তরাজ্যেই স্থায়ীভাবে বাস করেন ইমা।

প্রায়ই মেয়ের সঙ্গে দেখা করতে যান ইলিয়াস কাঞ্চন। এবার নতুন নাতির মুখ দেখতেও যুক্তরাজ্যে যাবার প্রস্তুতি নিচ্ছেন তিনি। আগামী ২৮ অক্টোবর সকাল ১০টার ফ্লাইটে ঢাকা ছাড়বেন তিনি। ফিরবেন ১২ নভেম্বর।
প্রসঙ্গত, নিরাপদ সড়কের জন্য বিশেষ অবদান রাখায় ২০১৮ সালে একুশে পদক পান চিত্রনায়ক ইলিয়াস কাঞ্চন। এই নায়কের আরেক সন্তান মিরাজুল মঈন জয়। ছেলের ঘরেও এক নাতির মুখ দেখেছেন জনপ্রিয় অভিনেতা ইলিয়াস কাঞ্চন। তার নাম ফাইজান।

About Nusraat

Check Also

‘আমি কোনো ফকিরনি পরিবারের মেয়ে না’, নীলা চৌধুরীকে শাবনূর

চিত্রনায়ক সালমান শাহর মৃত্যুর ২৪ বছর পর পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই) তদন্ত প্রতিবেদন প্রকাশের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *